স্বাস্থ্য সুরক্ষার সঠিক উপায়

স্বাস্থ্য সুরক্ষা সবার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। সবার উচিত নিজের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য সঠিক ভাবে পরিকল্পনা করা বিশেষ করে প্রত্যেকটা মৌসুমে তার শরীরকে সতেজ রাখতে প্রয়োজনীয় মত প্রক্ষেপ নেওয়া।

বিশেষ করে শীতের মৌসুমে আমরা সবাই শরীরের যত্ন না নেয়াতে অনেক সময় শরীর অকালেই ভেঙে পড়ে তাই প্রতিনিয়ত শরীরের যত্ন নেওয়া আমাদের দায়িত্ব এবং কর্তব্য হিসেবে এটা নেওয়া উচিত। জের শরীরকে দীর্ঘ সময় ধরে রাখতে দীর্ঘ সময় নিজের শরীর প্রটেক্ট করার জন্য সবার উচিত নিয়মিত ব্যায়াম করা, নিয়মিত ও প্রযুক্তিমত সবকিছু তৈরি করা সঠিক উপায়ে নিজের শরীরকে গঠন করা, নিজের শরীর চর্চা করা, আমিষ জাতীয় খাবার খাওয়া সহ আরও বিভিন্ন উপায়ে নিজের শরীরকে ধরে রাখা যায় সেউপায় গুলি অবলম্বন করা।

বিশেষ করে দেখা যায় , শীতের মৌসুমে আমাদের শরীরে শরীরের অন্যান্য অঙ্গ প্রত্যঙ্গে বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন খোসকার ফুটে উঠে তাছাড়া ও চামড়ার মধ্যে খোসকা একটা ভাব চলে আসে। এইসব খোসকা ভাব দূর করতে বিভিন্ন ক্রিম-লোশন অনেক ভাবে আমাদের সহায়তা করে থাকে। তাই শীতের মৌসুম আমরা এগুলো ব্যবহার করে থাকি অনুরূপ ভাবে গরমের দিনেও নিজের শরীরকে নিজের চেহারাকে সতেজ রাখতে বিভিন্ন উপায় অবলম্বন করা উচিত। আমাদের আমরাকি আদর্শ গুলো করে থাকি?

মনে রাখবেন, প্রত্যেকটা মানুষের উচিত নিজের শরীরকে সর্বদা সবসময় সর্বক্ষণিক ধরে রাখার চেষ্টা করা যাতে নিজের শরীর অসময় অকালে ভেঙ্গে না যায় নিজের শরীর যাতে সব সময় ভালো থাকে, সে বিষয়ে সচেতন থাকা উচিত সবার।

যারা নিজের শরীর সম্পর্কে সচেতন না তারা দেখবেন নিজের শরীরকে অকালেই শেষ করে দিচ্ছে। অবশ্য নিজের শরীরকে প্রটেক্ট করার জন্য বিভিন্ন উপায় সমূহ রয়েছে যেগুলো আমাদের দৈনন্দিন জীবনে করা উচিত বলে আমি মনে করি।

►► আরো দেখো: জীবনের সাফল্য কোথায় থাকে?

►► আরো দেখো: সেদিন রাতের ভয়ঙ্কর আর্তনাদ

স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেন করবেন?

প্রত্যেকটা মানুষের রচিত নিজের শরীরকে ধরে রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা। বিষয়টি যদি আমি আরেকটু এক্সপ্লেইন করতে চাই, সেক্ষেত্রে খেয়াল করে দেখবেন পথে অথবা বিভিন্ন হাট বাজারে বিভিন্ন মানুষ দেখা যায় যাদের কে আমরা অচেতন কিংবা পাগল নামে আখ্যায়িত করে থাকি তারা নিয়মিত শরীরের যত্ন না নেয়াতে তাদের শরীরের অবস্থাটা হয়ে থাকে সেগুলো যদি আপনি দেখেন তাহলে বুঝতে পারবেন যে আপনার শরীরের অবস্থাটা এমন হতে পারে তাই আমরা যদি একাধারে শরীরের যত্ন বেশ কয়েক দিন না নেই অনুরূপ ভাবে আমাদের শরীরের গঠন অবস্থাতে মনটি হতে পারে বলে জানান বৈজ্ঞানিক গবেষণা।

বিষয়টি যদি আমি আরেকটু সুন্দর ভাবে বুঝাতে চাই সেক্ষেত্রে আমি বলব, যে আমরা যদি লক্ষ করে থাকি যে শহর কিংবা বিভিন্ন অঞ্চলে বিভিন্ন মানুষ রয়েছে যাদের বয়স ৫০ থেকে ৫৫ অথবা ৬০ বছর হয়ে গেছে তারা এখনো খুবই সহজ এবং স্ট্রং রয়েছে কেননা তারা প্রতিনিয়ত ব্যায়াম করতে থাকেন প্রতিনিয়ত নিজের শরীরকে ধরে রাখার জন্য সকল ধরনের প্রচেষ্টা করে থাকেন আর এই প্রচেষ্টার ফলেনি জের শরীরকে তিনি ধরে রাখতে পারেন।

স্বাস্থ্য সুরক্ষা আমাদের জন্য কতটা জরুরি?

প্রত্যেকটা মানুষের উচিত নিজের স্বাস্থ্য সুরক্ষা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এই বিষয়টা ভেবে সঠিক উপায়ে নিজের শরীরকে প্রটেক্ট করার নিজস্ব হলে পরিচর্যা করা যেমন আমরা ছোটবেলা থেকে যদি একটা গাছ রোপন করে অনুরূপ ভাবে গাছ থেকে যেভাবে আমরা নিয়মিত পানি দেইবা নিয়মিত পরিচর্যা করে ঠিকক আমাদের শরীরকে যদি আমরা নিয়মিত পরিচর্যা করতে পারি। নিয়মিত শরীরকে আমরা ধরে রাখতে পারি তাহলে আমাদের বেঁচে থাকার সময় গুলো আরো বাড়ার সম্ভাবনা থেকেই যায়। অথবা আমরা বয়স হলেও আমাদের শরীর ভেঙে পড়েনা আমাদের শরীর সতেজ থাকে স্ট্রং থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.