কল রেকর্ড অ্যাপস গুলো বন্ধ করতে চলেছে গুগল

কল রেকর্ডের ভয়াবহতা সম্পর্কে কমবেশি আমরা সবাই জানি। ফোনে রেকর্ড করা একটা আলাপের মাধ্যমে অপর পক্ষের কতটা ক্ষতি করা সম্ভব তা ইতিমধ্যে প্রমানিত হয়েছে বিভিন্ন রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে শোবিজ তারকাদের ফাঁস হওয়া কল রেকর্ডের মাধ্যমে। কল রেকর্ডের ভয়াবহতা আঁচ করতে পেরে বহুদেশ গোপনে কল রেকর্ড করাকে গুরুতর অপরাধ এর তালিকায় রেখেছে।

অবশেষে কল রেকর্ডের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে গুগল। কল রেকর্ডের বিরুদ্ধে গুগলের নেওয়া চমকপ্রদ সিদ্ধান্তের ফলে এখন খুব সহজেই আপনি ধরে ফেলতে পারবেন আপনার কল রেকর্ড করা হচ্ছে কিনা। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক! কিভাবে আপনি বুঝতে পারবেন গোপনে আপনার কলটি রেকর্ড করা হচ্ছে কিনা,,

জরুরী তথ্য পুনরায় শোনার জন্য কল রেকর্ডের ফিচার ফোনে যুক্ত করা হলেও, বেশিরভাগ সময়ই এই ফিচার কে কাজে লাগিয়ে অপরপক্ষের স্বরযন্ত্রের কাজে ব্যবহার করা হয়। সাম্প্রতিক সময়ে কল রেকর্ড ফাঁস হওয়ার হার পূর্বের বছর গুলোর চাইতেও কয়েক গুন বেড়েছে। ফাঁস হওয়া রেকর্ড বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে, এসব রেকর্ড উদ্দেশ্যমূলক ভাবে প্রচার করা হচ্ছে।

বিশেষ করে ফেইসবুক, ইউটিউব এর মত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এইসব ফোন কল রেকর্ডের মূলে রয়েছে রাজনৈতিক, ব্যক্তিগত বা গোষ্ঠীগত সার্থ্য ও প্রতিহিংসা। সাধারণ নাগরিকদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তার সাংবিধানিক অধিকার চরম হুমকির মুখে পড়লেও, এসব কল রেকর্ড কিভাবে করা হচ্ছে, কোথায় সংরক্ষণ করা হচ্ছে এবং কারা প্রচার করছে? তার সদুত্তর কখনো পাওয়া যায়নি। বেশিরভাগ সময়ই থার্ড পার্টি অ্যাপস ব্যবহার করে রেকর্ড করা হচ্ছে এসব ফোন কল।

এন্ড্রয়েড ফোন গুলো সংবেদনশীল বেআইনী কাজের সাথে যুক্ত হলেও, বিশ্ব খ্যাত কোম্পানি অ্যাপলের আইফোন কল রেকর্ড নিয়ে সৃষ্টি হওয়া সমালোচনা থেকে সম্পুর্ন মুক্ত। আইফোনে কল রেকর্ডের জন্য কোনো সফটওয়্যার নেই। এমনকি কোনো থার্ড পার্টি সফটওয়্যার ও ব্যবহার করা যায় না। সেক্ষেত্রে ফোনের লাউডস্পিকার অন করে যেকেউ অন্য যেকোনো রেকর্ডিং ডিভাইস ব্যবহার করে কথোপকথন রেকর্ড করতে পারে। সম্প্রতি গুগলও হেটেছে আইফোনের পথে।

কল রেকর্ডের ফিচারটি প্রায় সবার ফোনে থাকলেও, অনেকের ফোনে নেই তাই কল রেকর্ড করতে ব্যবহারকারীরা সাহায্য নেয় থার্ড পার্টি অ্যাপের। এই থার্ড পার্টি এপস ব্যবহার করে দুই পক্ষের কথোপকথন রেকর্ড করা হয়। বিনা অনুমতিতে কল রেকর্ডের মতো বেআইনী কাজের বিরুদ্ধে গুগল এখন শক্ত অবস্থান নিয়ে নিষিদ্ধ করেছে কল রেকর্ডের জন্য থার্ডপার্টি অ্যাপ। এখন থেকে গুগলের অনুমতি নেই এমন কোনো অ্যাপ ব্যবহার করে কল রেকর্ড করা যাবে না। আইফোনের মতো গুগল ও থার্ড পার্টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করার অন্যত্য কারন হিসেবে জানিয়েছে ব্যবহারকারী দের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.